সরকারি নার্সিং ভর্তি যোগ্যতা কি? বিস্তারিত পড়ুুন..

বাংলাদেশ নার্সিং ও মিডওয়াইফারি কাউন্সিল (BNMC) কর্তৃক গৃহীত নিতীমালা অনুসারে ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষের জন্য সকল শিক্ষার্থীকে ১০০ নাম্বারের MCQ পরীক্ষায় অংশ নিয়ে নার্সিং কলেজে ভর্তির যোগ্যতা অর্জন করতে হবে। এখানে ন্যূনতম পাস নাম্বার ৩০, কেউ ৩০ এর কম পেলে বেসরকারী কলেজেও ভর্তি হতে পারবেন না।

ডিপ্লোমা ইন নার্সিং সায়েন্স এন্ড মিডওয়াইফারি

ডিপ্লোমা ইন নার্সিং ভর্তির যোগ্যতা: যে কোন বিভাগ হতে এসএসসি ও এইচএসসি বা সমমান দুটি পরীক্ষায় মােট জিপিএ (Grade Point Average) ৬.০০ থাকতে হবে। তবে কোন একটি পরীক্ষায় জিপিএ (Grade Point Average) ২.৫০ এর কম হবে না।

  • প্রার্থীকে ২০২২ অথবা ২০২১ সালে এইচএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় পাশ এবং ২০২০ বা ২০১৯ সালে এসএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে।
  • পুরুষ/ মহিলা উভয়ই আবেদন করতে পারবেন।
  • মহিলা - ৯০% এবং পুরুষ ১০%, তবে বেসরকারি কলেজে পুরুষ প্রার্থী সর্বোচ্চ ২০% হারে ভর্তি হতে পারবেন।


ব্যাচেলর অব সায়েন্স ইন নার্সিং (বিএসসি ইন নার্সিং)

বিজ্ঞান বিভাগে এসএসসি ও এইচএসসি বা সমমানের দুটি পরীক্ষায় মােট জিপিএ ৭.০০ থাকতে হবে। তবে কোন পরীক্ষায় জিপিএ (গ্রেড পয়েন্ট এভারেজ) ৩.০০ এর কম হবে না এবং উভয় পরীক্ষায় জীববিজ্ঞানে জিপিএ ৩.০০ থাকতে হবে।

  • প্রার্থীকে ২০২২ অথবা ২০২১ সালে এইচএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় পাশ এবং ২০২০ বা ২০১৯ সালে এসএসসি বা সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে।
  • পুরুষ/ মহিলা উভয়ই আবেদন করতে পারবেন।
  • সরকারি নার্সিং কলেজে মহিলা - ৯০% এবং পুরুষ ১০% ভর্তি হতে পারবেন, তবে বেসরকারি কলেজে পুরুষ প্রার্থী ২০% পর্যন্ত ভর্তি হতে পারবেন।


ডিপ্লোমা ইন মিডওয়াইফারি

যে কোন বিভাগ হতে এসএসসি ও এইচএসসি বা সমমান দুটি পরীক্ষায় মােট জিপিএ (Grade Point Average) ৬.০০ থাকতে হবে। তবে কোন একটি পরীক্ষায় জিপিএ (Grade Point Average) ২.৫০ এর কম হবে না।

  • শুধু মহিলা প্রার্থী আবেদন করতে পারবেন।
  • মহিলা - ১০০%


নার্সিং ভর্তির যোগ্যতা (অন্যান্য শর্তাবলী):

  1. বাংলাদেশের স্থায়ী নাগরিক হতে হবে;
  2. অবিবাহিত ও সু-স্বাস্থ্যের অধিকারী হতে হবে(ডিপ্লোমা ইন মিডওয়াইফারি কোর্সের জন্য প্রার্থীর বৈবাহিক অবস্থা প্রযােজ্য নহে);
  3. মুক্তিযােদ্ধা কোটা( সন্তান, সন্তানদের সন্তান) ডিপ্লোমা ইন মিডওয়াইফারি কোর্সের জন্য ২০(বিশ)টি আসন, ব্যাচেলর অব সায়েন্স ইন নার্সিং(বিএসসি ইন নার্সিং) এর জন্য ২২(বাইশ)টি ও ডিপ্লোমা ইন নার্সিং সায়েন্স এন্ড মিডওয়াইফারি কোর্সের জন্য ৫২(বায়ান্ন)টি আসন সংরক্ষিত থাকবে। এ সকল প্রার্থীদেরকে ও অন্যান্যদের ন্যায় ন্যূনতম শিক্ষাগত যােগ্যতা সম্পন্ন হতে হবে। সংরক্ষিত আসনগুলিতে সম্পূর্ণ মেধার ভিত্তিতে ভর্তি করা হবে। অবশিষ্ট আসনের ৬০% জাতীয় মেধা কোটা ও ৪০% জেলা কোটার ভিত্তিতে নির্বাচন করা হবে।
  4. যুক্তিযুক্ত সংখ্যক মেধা ভিত্তিক অপেক্ষমান তালিকা প্রকাশ করা হবে এবং মেধা ভিত্তিকভাবে নির্বাচিত প্রার্থীগণ ভর্তির পর শুন্য আসনে (যদি শুন্য থাকে) মেধাক্রমানুসারে ভর্তি করা হবে।
  5. প্রার্থী কোন প্রতিষ্ঠানে ভর্তির সুযােগ পাবে তা নির্ভর করবে লিখিত পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বর ও প্রার্থীর দেয় পছন্দের ক্রমানুসারে। নির্বাচিত প্রার্থী তার প্রাপ্ত নম্বর অনুযায়ী পছন্দনীয় প্রতিষ্ঠানে ভর্তির সুযােগ না পেলে কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত মােতাবেক প্রাপ্তনম্বরের ভিত্তিতে অন্য যে কোন প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হতে পারবেন।
  6. ব্যাচেলর অব সায়েন্স ইন নার্সিং (বিএসসি ইন নার্সিং) ৭০০/-(সাতশত) টাকা, ডিপ্লোমা ইন নার্সিং সায়েন্স এন্ড মিডওয়াইফারি ডিপ্লোমা ইন মিডওয়াইফারি কোর্সে ভর্তি পরীক্ষার ফি বাবদ ৫০০/-(পাঁচশত) টাকা মাত্র টেলিটক প্রি-পেইড মােবাইলের মাধ্যমে জমা প্রদান।

ভর্তি পরীক্ষার মানবন্টন

১০০ নম্বরের এমসিকিউ পরীক্ষা এবং ৫০ নম্বর এস.এস.সি এবং এইচ.এস.সি পরীক্ষার জিপিএ থেকে নেয়া হবে। অর্থাৎ মোট ১৫০ নম্বরের উপর ভর্তি পরীক্ষার মেরিট লিস্ট হবে। নিচে MCQ পরীক্ষার মানবন্টন দেয়া হলো:
বিএসসি ইন নার্সিংডিপ্লোমা ইন নার্সিং সায়েন্স এন্ড মিডওয়াইফারি / ডিপ্লোমা ইন মিডওয়াইফারি
১। বাংলা- ২০
২। ইংরেজী – ২০
৩। গনিত – ১০
৪। বিজ্ঞান (রসায়ন, জীব বিজ্ঞান,রসায়ন)- ৩০
৫।সাধারন জ্ঞান – ২০
১। বাংলা – ২০
২। ইংরেজী – ২০
৩। গণিত – ১০
৪। সাধারন বিজ্ঞান – ২৫
৫। সাধারন জ্ঞান – ২৫

জিপিএ থেকে ৫০ নম্বর যেভাবে নেয়া হবে:

এসএসসি পরীক্ষার জিপিএ -এর ৪ গুন = ২০ নম্বর
এইচএসসি পরীক্ষার জিপিএ -এর ৬ গুন = ৩০ নম্বর

উদাহরণসরূপ ধরুন আপনি এসএসসি পরীক্ষায় ৪.৮৮ এবং এইচএসসি পরীক্ষায় ৪.৫০ পেয়েছেন। তাহলে আপনি ৫০ এর মধ্যে পাবেন
= (৪.৮৮×৪) + (৪.৫০×৬)
= ৪৬.৫২ নম্বর


নার্সিং কলেজের আসন/ সিট সংখ্যা:

কোর্সের নামসরকারি কলেজবেসরকারি কলেজ
১। বিএসসি ইন নার্সিং২০ টি
আসন = ১,৫৩৫
৬৬ টি
আসন = ৩,১৪০
২। ডিপ্লোমা নার্সিং
৪৬ টি
আসন = ২,৭৩০
২৩৮ টি
আসন = ১১,৫০০
৩। মিডওয়াইফেরি৪১ টি
আসন = ১,০৫০
৪১ টি
আসন = ১,০৪৪
আরো পড়ুন......
নার্সিং পড়ার খরচ বেসরকারি নার্সিং কলেজে পড়ার খরচ
Next Post Previous Post